অসম্পূর্ণ নারী – দেবদাস কুণ্ডু

 

 

[post-views]

 

[printfriendly]

 

 

তুমি যদি বলো, জীবন একটা বড় জিরো
আমি উদাসীন চোখে দেখবো সবুজ মাঠ।
তুমি যদি বলো, ভালোবাসা গিভ এন্ড টেক
আমি অপলক চোখে দেখবো হিমালয়ের স্বর্ন চূড়া।
তুমি যদি বলো, মানুষ আসলে একটা ভন্ড
আমি নতজানু হবো বুদ্ধের পায়ের কাছে।
তুমি যদি বলো, পৃথিবী বড় নিষ্ঠুর
আমি নদীর বিছানায় ভেসে যাবো মোহনায়।
তুমি যদি বলো, পৃথিবীতে যতো গান
সব মিথ্যে,সব বানানো, অলীক
আমি উচ্চ কন্ঠে বলবো, জীবনের আরেক নাম
সংগীত।
তুমি যদি বলো, হৃদয় বলে কিছু নেই
আমি বলবো, অন্তর মহলে জন্ম নেয় প্রেম।
তুমি যদি বলো, সব পুরুষ নারী লোভী
আমি কল্পনা করবো, রামকৃষ্ণের ষোড়শো পূজা
তুমি যদি বলো, পুরুষ সুযোগ পেলে
নারীর উরুতে রাখে নোংরা হাত
বুকের বিভাজিকায় গুঁজে দেয় মুখ
আমি তখন রামকৃষ্ণের পদধূলিতে শয়ন করবো
তুমি যদি বলো, পুরুষের হাত লোভী
আমি বলবো, সব হাত এক মাংসের নয়।
এই হাত সৃষ্টি করেছে বিশ্ব ইতিহাস
এই মুখ মুখর করেছে  সংগীতে পৃথিবী
তুমি যদি বলো, পুরুষ বোঝে যৌন খিদে
আমি বলবো, খিদের আগুন পাল্টে
দিয়েছে পৃথিবীর যাবতীয় মানচিত্র।
তুমি যদি বলো, আমি পুরুষ চাই না
আমার একাকী জীবন বড় ভালো।
আমি বলবো, তুমি এক অসম্পূর্ণ নারী
তুমি এক নিশীথ আমাবস্যা।
নারী জীবন পেয়ে তুমি নারী হয়ে উঠলে না।
দেবদাস কুণ্ডু

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top