আনফ্রেন্ড – রায়হান আজিজ

[post-views]
.

বছর তিনেক আগের কথা। সাত বছরের পুরনো ফেসবুক আইডি টি হ্যাক হয়ে যাওয়ায় বর্তমান অ্যাকাউন্টটি খুললাম। খোলার তিন-চার দিন পরই তোমার আইডি থেকে আমার কাছে ফ্রেন্ড রিকোয়েস্ট এল। এক্সেপ্ট করার ক্ষেত্রে আমি বরাবরই চুজি।

নামটি তোমার আশা! যা হোক প্রোফাইল পিকে তোমার কোঁকড়া চুল দেখে বেশ ভাল লেগে যায়। তারপর প্রোফাইলটি সামান্য অ্যানালাইসিস করে আমি গ্রহণ করলাম তোমার রিকোয়েস্ট।

তুমি যখন তোমার ছবিগুলো আপলোড করতে বেশিরভাগের লাইক বাটনেই আমার আঙুল পড়ত। কিন্তু, দুঃখের বিষয়, তুমি কখনোই আমার কোনও পোস্ট কিংবা পিকে লাইক দাওনি। তাই তোমার ওপর ভারি রাগ হত।

মাঝে মাঝে তোমার অনেক পোস্টে কমেন্টও করতাম। একদিন তুমি একটা পোস্ট দিয়েছিলে। সেটি অনেকটা এরকম, “আমাকে কনট্রোল করতে পারবে এমন কোনও ছেলের জন্মই হয়নি।”

তো পোস্টটি পড়ে আমি কমেন্ট করলাম, “ছেলেরা কেন মেয়েদেরকে কন্ট্রোল করবে? মেয়েদেরকে সম্মান করতে হবে।” এরপরই আমাকে আনফ্রেন্ড করে দিলে তুমি! আচ্ছা, বলতো, আমি খারাপ কি বলেছিলাম। সমাজে অনেক ছেলেরাই মেয়েদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করতে চায়, যা ন্যাক্কারজনক!

আমি শুধু একথাটিই বলতে চেয়েছি। আমি তো তোমার পক্ষ নিয়েই কথা বলেছিলাম। আমার কথায় দ্বিমত পোষণ করলে তুমিতো কমেন্টে নয়তো ইনবক্সে আমার সঙ্গে ঝগড়াও করতে পারতে! আমাকে এ সুযোগটিও দিলেনা!

জানো? তোমাকে খুব মিস করি! একটি বার ঝগড়া করার জন্য হলেও বন্ধুত্বের হাতটি আবার বাড়িয়ে দাওনা, প্লিজ!

তোমার প্রতি ভারি অভিমান হচ্ছে। দাওনা ভাঙিয়ে এই ছেলেটির অভিমান! নইলে তোমার সঙ্গে এই কড়ে আঙুল দিয়ে আড়ি করব বলে দিলাম! একদিন হয়ত অনেক খুঁজবে আমায় কিন্তু চাইলেও নাগাল পাবেনা আর। তখন আবার কেঁদে বুক ভাসিয়োনা যেন!

.
[post-views]
.

আপনার মতামত এর জন্য

[everest_form id=”3372″]

রায়হান আজিজ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top