আমাদের ধারণাপাখি চর্চা – গোবিন্দলাল হালদার

– 

[post-views]

ধারণারপাখি আমি বাড়িতে রেখে খুব আদর করব।
পাখি ডাকে মধুর  সুরে। কথা বলে সত্যের পক্ষে। আর  আমরা যারা পাখির সাথে কথা বলি সরবে কিংবা নিরবে পাখি  তখন প্রত্যেককে দেয় স্বাদের নতুন সন্দেশ। তবে কিছু ডানা ভাঙা পাখি আছে ; ওদের কথা আলাদা।
প্রচন্ড গরমে ওদেরও গরম লাগে। হৃতপিন্ড শুকিয়ে যায়।তৃষ্ণা লাগে।  কিন্তু পাখার বাতাস চায় না। হাড়কাঁপুনে শীতে গরম লেপ কাঁথা চায় না।  বার্ষিক উৎসবেও দামি কোন পোষাক চায় না। তিনবেলা আহামরি মুখরোচক খাবার চায় না। রোগ- ব্যাধিতে ওষুধ লেগেছে বলে আমার জানা নেই। মখমলের  নরম বিছানায় শুইয়ে দিতে হয় না। সুগন্ধী গায়ে মাখতে হয় না। রুপচর্চার জন্য কোন প্রসাধনীর দরকার হয় না।  এমন কী ওদের কোন হাত খরচ লাগে না। ধুত্তরি! ওরা ধুমপান তো দূরের কথা এক কাপ চা পর্যন্ত খায় না। অথচ ওরা মিতব্যয়ী নয়।  ওদের আহ্লাদ  জন্ম উৎসবে মোড়ক থেকে বাইরে আসে। হাতে হাতে বিতরণ হয়৷ ইচ্ছাটা ওদের বড়;  সাগর পাড়ি দেয় অন্য মাতৃভাষার হৃদয় নিয়ে। ভিনদেশী হয়েও ওরা সুখে থাকে।ধারণাপাখিদের প্রাণের দাবী  : প্রত্যেকের বাড়িতে তাকের পর তাক  সাজিয়ে ওদের সযতনে রাখা হোক । বিপনী বিতানে আর সংরক্ষণ শালায় সাজানো হোক এ জন্ম আর প্রজন্মের ছোট বড় ধারণাপাখিদের দিয়ে।
ধারণাপাখিরা খুব খুশি হয় প্রতিদিন ওদের দেহাবরণের ভাঁজ আঙ্গুলে ঘষে আদর করলে এবং ভাঁজশরীর থাকে জ্ঞানপুষ্পের গন্ধ নিলে ।
ইদানীং আমরা কেউ কেউ ধারণাপাখি অধ্যয়ন ভুলে যেতে বসেছি। আসুন আমরা বেশি বেশি ধারণাপাখি পুষি।আমাদের স্বদিচ্ছাকে প্রতিদিন বাড়িয়ে দিই। ধারণাপাখির খাঁচা আমাদের বাড়িতে বাড়িতে হয়ে যাবে। আমারা ঘরের সোনালি খিড়কি খুলে দিয়ে নির্ধিদায় বলতে পারবো আমরা ধারণাপাখির চর্চা  করি। আমাদের সবকিছুই জীবানুমুক্ত। আমরা এখন বাড়িতে বাড়িতে পরিস্কার মনের চর্চা করি।
চরপাড়া,বেড়া,পাবনা
ঠিকানা : চরপাড়া , বেড়া,পা্বনা

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top