আমি যে ঊর্মিলা – সুমিত মোদক

 6 total views

আমার কোনও অভিমান নেই , তোমার উপর ;

আমার কোনও রাগ নেই , তোমার উপর ;
নেই কোনও অভিযোগ ;
আমার সমস্ত প্রেম , তোমার জন্য ;
আমার সকল প্রেমালাপ , তোমার জন্য ;
কেবলমাত্র , তোমার জন্য ;
একটি দুটি বছর নয় , চোদ্দটি বছর অপেক্ষা করতে হয়েছে  ,
আমার ভালবাসাকে ফিরে পেতে ,
আমার প্রেমিক-পুরুষকে ফিরে পেতে ;
তাতেই আমি খুশি , তাতেই আমি আনন্দিত ,
আমি গর্বিত আমার ভালবাসার কাছে ,
আমার স্বামী-পুরুষের কাছে ;
বিয়ের কটা দিন যেতে না যেতে তুমিও দাদার সঙ্গে বনবাস পর্বে ;
দাদা শ্রীরামচন্দ্র পিতৃধর্ম পালনের জন্য চোদ্দ বছরের বনবাসে গেলেন ;
সঙ্গ নিলে তুমি ও দিদি ;
আর আমি তখন একা ;
রাজঐশ্বর্যেরমধ্যে থেকেও একা ;
ভেবে পারছিলাম না চোদ্দটি বছর একা এ জীবন কাটাবো  কিভাবে !
আমি যে নারী , ভারতীয় নারী ;
আমি যে ঊর্মিলা তোমার ;
তার পর কি হলো কে জানে !
টানা চোদ্দটি বছর ঘুমিয়ে কেটে গেল ;
ঘুম , ঘুম , মহাঘুম …
সে ঘুমের মধ্যে ঘটে গেছে অনেক , অনেক ঘটনা…
মহারাজ দশরথের অকাল মৃত্যু ,
রাজ সিংহাসনে শ্রীরামচন্দ্রের পাদুকা রেখে ভরতের রাজ্য শাসন ,
রাবণের সীতা হরণ ,
অকালবোধন ,
তোমার শক্তিসেল ,
মেঘনাদবধ ,
লঙ্কা জয় …
তুমি অযোধ্যা ফিরে ঘুম ভাঙিয়ে না বললে কিছুই জানা হতো না ;
জানা হতো না কিভাবে ঘুমিয়ে ছিলাম ,
কি জন্য ঘুমিয়ে ছিলাম ;
জানা হতো না তোমায় এতো গভীর ভালবাসা ,
আমার বসন্ত উৎসব ;
চল , আজ দুজনে জ্যোৎস্না মাখি ;
চল , আজ দুজনে প্রেমের মালা গাঁথি ।।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *