একটা ছবি – শম্পা সাহা

[post-views]

হেঁটে চলে একদল রক্তাক্ত পা
ধুঁকতে ধুঁকতে চলে মানুষ বা না-মানুষ দল
ছিল কোনদিন যারা প্রাণচঞ্চল
আজ ন্যুব্জ ঘাড়
কোলে অপুষ্ট বাচ্চা
স্বাধীনতা দিবসে জোরে বাজে গান
“সারে জহাঁ সে আচ্ছা… । “
কঙ্কাল সার ঐ বিভৎস অবমানুষের
প্রেতচ্ছায়া
সভ্যতার মক্ষিরানী তার সাদা
বৈবাহিক পোশাক
ক্লেদাক্ত দাগ
তুলে ফেলে দামি ডিটারজেন্ট
মানুষের ঘাম আর রক্তের গন্ধ
ছড়িয়ে দাও বিদেশী আতর আর
নামি দামি সেন্ট।
‘ওরা খেটে খায়
ওদের দেখলে বমি পায়’
ওরে তথাকথিত এলিটের দল
কে তোদের মুখে অন্ন জোগায় বল?
মুঠো ফোনে জীবন কে ধরতে পারো নি
সেও জানি
সে যে হারায় বারে বারে
মাঠে ঘাটে প্রান্তরে
আর গরীবের চালা ঘরে।
নুন আর ফ্যানা ভাতে জীবনের
অনাবিল গন্ধ
তবু বন্ধ হয় না
পৈশাচিক চিৎকার
ক্ষিদে তার বারে মুহুর্মুহু।
মুমূর্ষু মা কাঁদে
হাপুস নয়নে
কাঁদে কোলে ক্ষুধার্ত বাচ্চা।
দূর থেকে শুনি
ভেসে আসে গান
“সারে জহাঁ সে আচ্ছা……। “
শম্পা সাহা

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *