এক জোড়া পুরোনো জুতোর দাম সাড়ে তিন কোটি টাকা – সিদ্ধার্থ সিংহ

 [post-views]

 [printfriendly]

[smbtoolbar]

 

৪৭ বছরের পুরোনো এক জোড়া জুতোর দাম সাড়ে তিন কোটি টাকা। মাত্র ১২ পিস বানানো হয়েছিল। তার মধ্যে এই এক জোড়াই এখনও অক্ষত রয়েছে।

১৯৭২ সালে তৈরি হয়েছিল এই জুতো। এই জুতো তৈরির পিছনে আবার একটা ইতিহাসও রয়েছে।

বিখ্যাত ক্রীড়া সরঞ্জাম প্রস্তুতকারক সংস্থা নাইকি-র কো-ফাউন্ডার বিল বোয়ারম্যান বানিয়েছিলেন এই জুতো।

১৯৭২-এর অলিম্পিকে যে প্রতিযোগীরা দৌড়েছিলেন, তাঁদের ট্রায়াল দেওয়ার জন্যই এই বিশেষ জুতোগুলো তৈরি করেছিলেন তিনি।

তার মধ্যে এই একটি জোড়াই এখনও অক্ষত আছে। আর এই অক্ষত জুতোর দামই সাড়ে তিন কোটি টাকা।

১৯৭২ সালে তৈরি এই জুতোকে বলা হয় ‘মুন শু’। সেই মুন শু-ইয়েরই শেষ জোড়াটি নিলামে কিনে নিলেন কানাডার টরেন্টোর বাসিন্দা মাইলস নাদাল।

তাঁর দুর্লভ জুতোর বিপুল সংগ্রহ রয়েছে। নাদাল নিজের ব্যক্তিগত সংগ্রহে রাখবেন বলেই কিনেছেন এই জুতো।

এর আগেও ৯৯ জোড়া বিরল জুতো বেশ মোটা টাকা দিয়ে তিনি নিলামে কিনেছেন। মুন শু-কে তিনি বিরলতম সংগ্রহ বলে ব্যাখ্যা করছেন।

তাঁর মতে, খেলাধূলা ও পপ কালচার-এর সঙ্গে সরাসরি যোগ রয়েছে এই স্নিকার-এর। সোথেবি নামের একটি সংস্থা মুন শু-এর নিলামের ব্যবস্থা করেছিল।

এর আগে বাস্কেটবল কিংবদন্তি মাইকেল জর্ডানের অটোগ্রাফ করা জুতো বিক্রি হয়েছিল ১ কোটি ৩১ লক্ষ টাকায়।

ওটাই ছিল এ যাবদ সব থেকে বেশি দামে নিলামে বিক্রি হওয়া কোনও জুতো। কিন্তু এ বার এই মুন শু-ই সেই রেকর্ড ভেঙে দিল।

সিদ্ধার্থ সিংহ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top