জয় পরাজয় – ছন্নছাড়া

[post-views]
.

জীবনে উর্মি শুধু পেতে চেয়েছে। তাই সর্বদা দুমুখো পথে নিজেকে পথ দেখিয়েছে। হয় সোজা পথে না হলে বক্র পথে। তবে নিজের পাওয়াটা নিশ্চিত করতে উর্মি বদ্ধপরিকর।

উর্মি জানতো তার হারানোর কিছু নেই। অমরের সাথে সচতুর পরিকল্পনায় পরিচয় করেছিল। তারপর বিস্তার করেছে তার মনমোহিনী মায়াজাল!

অমরও বোকার মত তাকে বিশ্বাস করে জড়িয়েছে নিজেকে অথবা উর্মির পরিকল্পনা ছিল এমনটাই। সম্পর্কের প্রথম কয়েকদিনেই অমর ঠিক বুঝেছিল উর্মিকে আজকের মতই।

তবুও অমরের নিজের উপর বিশ্বাস ছিল সব বদলে যাবে। ভেবেছিল তার ভালবাসা পারবে উর্মিকে বদলে দিতে। কিন্তু কত ভুল ছিল সেই ভাবনাতে! উর্মির সুন্দর পরিকল্পনা রুপায়নের সুচারু দক্ষতা অমরকে কতবার যে বোকা বানিয়ে ছাড়ল তা কল্পনার বাইরে! শেষে নিজের জীবনের বিনিময়ে সেই মূল্য দিতে হল অমরকে।

উর্মির অপরাধ একটার পর একটা ক্ষমা করে দিয়েছে অমর, ততবার উর্মি সুযোগ নিয়েছে অমরের তার প্রতি দূর্বলতার। প্রতিবার নাটুকে ভালবাসার অভিনয় করে দুদিনেই সব ভুলিয়ে দিয়েছে অমরকে। বারবার অমরের সরলতা পরাজিত হয়েছে উর্মির মতলবি মনের কাছে।

কি সুচতুর পরিকল্পনা উর্মি দিনের পর দিন বুনেছে অমরকে ফাঁসিয়ে দেওয়ার? আর অমর সব কিছু বুঝতে পেরেও অপেক্ষা করেছে উর্মির মনের পরিবর্তনের, কিন্তু উর্মি ত সেটাকেই ব্যবহার করেছে বারবার।

নিজের সমস্ত অপরাধ চার দেওয়ালের মধ্যে আটকে রেখেছে সুনিপুণ দক্ষতায়, আর ঘরের বাইরে জাল বুনে গেছে অমরের নামে মিথ্যা অপবাদের, নিজের মত করে।

বুঝতেই দেয় নি অমরকে কি তার আঘাত হানার আয়োজন? সমস্ত কিছু নিজের মধ্যে গোপন করে রেখেছিল সযতনে, নিজের প্রিয়জনদেরও সামিল করেছিল আস্তে আস্তে এক এক করে সেই ষড়যন্ত্রে মিথ্যা গল্পের জাল বুনে।

অমরকে মিথ্যা অপবাদে অপরাধী করে তার জীবন নষ্ট করে উর্মি নিজের জীবন গুছিয়ে নেবে ভেবেছেন আবার নতুন করে। অমরকে সামাজিক হেনস্হা করে, তাঁর কাছ থেকে আর্থিক সুরক্ষাও আদায় করে অন্য আর একজনের সাথে সেই একই খেলায় নিজেকে মাতিয়ে তুলবে উর্মি।

এতকিছুর পরেও সত্যিই কি উর্মি কিছু পেয়েছে? অমরের অসম্মান, অমরের মায়ের নামে মিথ্যা অপবাদ হয়ত সবার কাছে তাদের ছোট করে দেখাতে চাইলো! আর ভাবল সে সবাইকে বোকা বানিয়ে জিতে গেছে, তাই ত?

কিন্তু সত্যি কি এটা উর্মির জয়? হয়ত কিছু অর্থ লাভ করল, কিন্তু সেটাই কি সব কিছু? উর্মির চারপাশে যারা তার প্রশংসা করছে, তারাও কি সত্য জানার পর তাকে নিয়ে হাসবে না!

তখন তারা উর্মির সামনে উর্মিকে তোষণ করবে আর আড়ালে তাকে নিয়ে মজা লুটবে, উর্মি নিজের জয়ের আনন্দে সে সব তখন বুঝবে না, কিন্তু একদিন যখন বুঝবে দেখবে সে কত একা!

হয়ত তাতেও তার কিছু যাবে আসবে না, কারণ ধ্বংসের খেলায় মাতলে তা কারুরই খেয়াল থাকে না। কিন্তু সে কখনও বুঝলই না যে সম্পর্ক শেষ করার অনেক সুযোগ অমরও কম পায় নি, চাইলে সেই তার সাথে সম্পর্ক শেষ করতে পারত।

করেনি, বরং বারবার সুযোগ দিয়েছে তাকে শোধরানোর কিন্ত উর্মি সেই সুযোগগুলো ব্যবহার করেছে আপন স্বার্থসিদ্ধিতে। জয়ী হয়েছে উর্মি, কারণ সে তার পরিকল্পনায় সফল। অমরকে মিথ্যা ভালবাসার জালে জড়িয়ে নিজের আখের গুছিয়ে নিতে পেরেছে। আর বোকা অমরটা তাকে সত্যি ভালবেসে হয়েছে অপরাধী, পরাজিত।

এতকিছু করেও উর্মি নিজে কেন আনন্দ পাচ্ছে না, কিছুদিন পর থেকেই সে তার সেই জয়কে উপভোগ করতে পারছে না কেন? ভেবেছিল নতুন কাউকে নতুন করে অমরের মত নিজের মায়াজালে জড়াতে পারবে। কিন্তু তার মন কেন যন্ত্রণায় কুঁকড়ে যাচ্ছে? তাহলে কি উর্মিও কোন এক জায়গায় পরাজিত অমরের মত? নাকি অন্যের সাথে যে ছলনার খেলা খেলতে সে অভ্যস্ত তাতে সে নিজেই নিজের কাছে পরাজিত?

.
[post-views]

.

আপনার মতামত এর জন্য

[everest_form id=”3372″]

Biswajit Bose

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top