নামে কী বা আসে যায়

 6 total views

রম্যরচনা
নামে কী বা আসে যায়
মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ
21/5/2021
————–
ঘটনাচক্র–1
একবার একটা ইংরেজি দৈনিক পত্রিকার আয়োজনে লিরিক কনটেস্টে সম্মাননা পেয়েছিলাম ।
পরম উত্তেজনা নিয়ে বাড়ি ফিরে ব্যাগ খুলে দেখলাম বেশ চমৎকার একটা ক্রেস্ট। আমার প্রতিযোগিতার ক্যাটাগরি– Lyrics থাকা সত্ত্বেও Photography উল্লেখ করা হয়েছে । আবার নির্বাচিত লিরিকসের অডিও এলবামে আমার গানটির গীতিকার হিসেবে নাম এসেছে Md.Salauddin
বিষয়টা পরে তাদের সাথে যোগাযোগের পরে অডিও এলবামে নামটা সংশোধন করেছে ।কিন্তু ক্রেস্টে উল্লেখিত ক্যাটাগরি– Photography সংশোধন করা সম্ভব হয়নি ।

ঘটনাচক্র–2
বহুদিন পর একটা আবৃত্তি অনুষ্ঠান ।স্বরচিত কবিতা।দেশী,বিদেশী কিছু কবির তালিকা ছিল ইনভাইট কার্ডে।
আয়োজকদের পরম আগ্রহ; আমি যেন অবশ্যই এই সুযোগ মিস না করি ।যদিও কার্ডে আমার নাম ছিলনা ।
প্রোগ্রামের দিন সন্ধ্যা অব্দি বসে আছি ।

কবিতা পাঠ শেষের দিকে। কিন্তু আমাকে ডাকেনা।উপস্থাপকের সাথে একান্তে কথা বলে জানালাম —বেশি দেরি হলে রাতের বাসটা মিস করব।
উনি বললেন, আপনারটাই এখন বাকি আছে ।আরেকটু কষ্ট করে বসুন ।—‘
আগের কবি তার কবিতা পড়ে নেমে গেছেন।
এবার আমার পালা ।
মাইকে ঘোষণা হলো—কবিতা পড়তে আসছেন কবি মো, সালাউদ্দিন ।
মানে কী!আমার নাম তো–?
ঠিক আছে ।আপনি চিন্তা করবেন না ।নামে কি বা আসে যায়।উঠুন তো।
মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে আমার সত্যিকারের নামটা সংশোধন করে বলতে হল।

ঘটনাচক্র— 3
আপনের নাম কি ডা.সালাউদ্দিন?
কেন? আমি কেন সালাউদ্দিন হতে যাব? আমার নামতো—
মামায় আপনের ধারে আইতে কৈছে ।ভালোভাবে চিকিৎসা কৈরা দিতেন ।
কিন্তু আমিতো সালাউদ্দিন না ।
যেডাই হন।চিকিৎসা দেন।।

ঘটনাচক্র– 4
জুনিয়র একজনের অপিসে গেছি ।
সুন্দর একটা অপিস।টিপটপ ।মানুষের নাড়াচাড়া বেশ গোছানো ।
পিয়নকে চিরকুট দিলাম ।এখানে আবার ইংলিশে নাম এন্ট্রি করতে হয়।
আধঘন্টা ধরে বসিয়ে রাখছে রিসিপশনে।
ভেতর থেকে একটা ছেলে বেরিয়ে এসে হাঁক দিলো —-সালাউদ্দিন সাব কে?
আমি এদিক ওদিক তাকাই ।
ছেলেটা আমাকে বললো, আংকেল— যাননা কেন?
আমি তো সালাউদ্দিন না ।
কেন আংকেল?এই স্লিপটা আপনার, না?
হ্যাঁ।কিন্তু এখানে নামতো Md.Shahidullah।

সত্যি কথা হল–জুনিয়র সার্ভিস হোল্ডার আমার Md.Shahidullah এর পরিবর্তে Md.Salauddin পড়েছে !

ঘটনাচক্র— 5
হাসপাতালের রোগী এডমিশন করিয়ে দৌড়ের উপরে থাকছি।সকালেই নাস্তা কিনে খেতে হবে ।
একজন জানালো,হাসপাতাল গেটেই হোটেল সালাউদ্দিন আছে ।ডাল–ভাজি ফেরেশ।লুডিঅ টাটকা ।
গেটের এদিক ওদিক তাকিয়ে পঞ্চাশ মিটার জায়গা তছনছ করে ফেলছি।
হোটেল সালাউদ্দিন নামে কোনো হোটেল নেই ।
শেষে একটা মুচি আমাকে দেখালো —ওইযে, ওইডা ছাব, হুটেল সালাউদ্দিন ।সাইনবুট দ্যাকতাছেননা ছাব?
সাইনবোর্ড লেখাটা পড়ে দেখে হাসি ঠেলে বেরিয়ে আসে ।
সুন্দর হরফে লেখা —ঐতিহ্যবাহী হোটেল সালাহ্ আল দীন ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *