প্রিয় বাংলাদেশ – এম.জাকারিয়া আহমেদ

  –

 [post-views]

আমি দেখেছি প্রভাত বেলায়
সূর্য উদয় হতে,
আমি দেখেছি সাঁঝের বেলায়
সূর্য অস্ত যেতে ।
আমি শুনেছি বসন্ত মাঝে 
কোকিলের কণ্ঠে গান,
আমি শুনেছি রাখালের বাঁশরীর সুরে
কাঁদতে তাহার প্রাণ ! 
আমি দেখেছি শরতাকাশে
সাদা মেঘের ভেলা,
আমি দেখেছি নদীর পাড়ে
কাশ ফুলেদের মেলা ।
আমি দেখেছি সূর্যের বিকিরণে 
রঙধনু আঁকা নীলাকাশ,
আমি খেয়েছি গ্রীষ্মের দুঁপুরে
ঝিরঝিরে দক্ষিণা বাতাস।
আমি কেটেছি সাঁতার ইচ্ছে মতো 
বর্ষায় জমে থাকা প্লাবণে,
আমি দেখেছি বৈঠা হাতে
ভাটিয়ালি গায় মাঝি আনমনে।
আমি ভিজেছি ইচ্ছে মতো 
ঝিরঝিরে শ্রাবণ ধারায়,
আমি কূঁড়িয়েছি আম কালবৈশাখী ঝড়ে ! 
হেটে হেটে পাড়ায় পাড়ায় ! 
আমি দেখেছি হেমন্ত প্রাতে
ঘাসের শিরে শিশিরের কণা,
দেখে মনে হতো যেন হীরে পড়ে আছে !
ছিলযে মনে কতো ভাবনা আর কল্পণা।
আমি দেখিনি বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন
শুধু দেখেছি প্রভাতফেরী,
তাইতো আমরা ভাষা শহীদদের স্বরণে
পালন করি একুশে ফেব্রুয়ারী।
আমি দেখিনি শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক 
তাজুদ্দীন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কিংবা
মাওলানা আব্দুল হামীদ খান ভাসানীকে।
শুধু পড়েছি তাদের বীরত্ব গাঁথা 
স্বর্ণাক্ষরে লেখা তাদের স্মৃতির পাতা ।
আমি দেখিনি জেনারেল জিয়ার
সামরিক শাসন,
আমি শুনেছি শরীর শিউড়ে উঠা
বঙ্গবন্ধুর সাতই মার্চের ভাষণ । 
আমি দেখিনি একাত্তরের রক্তে ভেজা প্রান্তর 
শুধু শুনেছি প্রতিবাদি গান,
তবে দেখেছি সেই বীর যোদ্ধাদের ! 
অস্ত্রহাতে যারা রেখেছিল বাংলার মান।
যাদের ত্যাগের তরে আমরা আজ
স্বাধীনতা ফিরে পেলাম,
শ্রদ্ধাভরে তাদের জানাই মোরা 
শত সহস্র কোটি সালাম।
মুক্ত আকাশে আজ পতাকা উড়ে
নেই কোন ভয়ের লেশ, 
এইতো আমার জন্মভূমি
প্রিয় বাংলাদেশ।। 

শোয়েব ইবনে শাহীন012

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top