বাংলার বাউল

বাংলার বাউল


লাল ছাড়ে না কাল, খালি জমির চটান
প্রেম মানায় মহুয়ার লালপাহাড়ি
গভীর নাড়া দেয় অগভীর
অভাবি বাংলা- ডোবা
অতৃপ্ত মাদল মাতাল ডুবে টুসু সুরে
ময়ালের মত আাঁকাবাঁকা আলপথ

রুমালে ঢাকে শীত
বসন্তে আদুল গাঁয়ের ছবি
খেজুর রসে তৃপ্ত জোতদার সকাল
গুড় তিক্ত হয় অভাবের পাতে

ভাঙ্গা কৌটোর মত গরীব হৃদয়
রঙচঙে বোতলে ভরা খিদের তরল
ঝুড়ি ভরে তোলে একশ দিনের কাজ
দিনমজুরি জুড়ে শ্রমিকের ঘাম
চোত্ মাসের বোলানে জীবনছন্দের অনুপস্থিত ছবি
বেঁচে থাকে ভাগাড় পেরিয়ে পোরো বোলানের দল

পুরুলিয়ার ছৌ নাচ লাফায় রক্তমাংস ঘিরে
আন্দোলন দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হয়
কৃষকের আর্তনাদে কাঁদে দেশের হৃদয়
ছৌ নাচ পাক খায় শ্রমিকের ঘাম শরীর জুড়ে
রুগ্ন লিপ্তপদি পায়ে জীবনসাগর পাড়ি

ধীরে বয়ে যায় না পাওয়ার বিকেল
পাহাড়ি রাস্তায় নামে আঁধারের কালো চাদর
একপেশে প্রাচুর্যের দম্ভে মরে যায় প্রতিভার ছটা
তবু আসে ফিরে বৃত্তাকারে শীতের ফসল


বাংলার খরখরে মাঠে রক্তমাংসের ঘাম
রোদ,জলে ভরে ওঠে সবুজ দিগন্তের গোল
শহর থেকে গ্রামে যায় নম্র ঘাসের মন
পেট ভরে খায় মহাজনি পেটমোটা দুপুর
অবশিষ্টে বেঁচে থাকে শ্রমিকের সোহাগি সকাল


ঢ্যাম কুড়াকুড় ঢাকের বাজনা জুড়ে ব্যাঙ্গের বিকেল
নদীর তীরে কাশফুলগুলো মনে হয় ভুট্টার খেত
বাবুদের জামার গন্ধ টা মাংসের ফ্লেভার
এক পেট খিদে থাকা মানুষগুলো নদীর জল, ভুট্টা খেয়ে কবিতা লিখত, গাইত

প্রাচীন একটা গোল কাঠের নৌকায় পেটমোটা লোক গুলো বোবা জলে ভেসে যায়,আর তাকিয়ে উপহাস করে অভুক্তজনকে আর দেখে, কাশফুলগুলো
ছিঁড়ে চিবোয় ভুখা মানুষের দল

ওরা জানে না কাশের রক্তমাংস জুড়ে ভুট্টার
খাদ্যপ্রাণ শুষে নিচ্ছে প্রাণপণে বাংলার উপোসি ভোর

পরিশ্রমের পাশে শ্রমিকের ফসলবিহীন গোলা
ঋণের বোঝা ভরে দেয় মহাজনি হাসি
আস্তে আস্তে কাস্তে হাতে জেগে ওঠে শিরা ও রক্তমাংস
লাল কলম লেখে বিপ্লবের আগমণি গান
তবু ওরা চিরকালের বাংলার প্রাণ

শাঁখ বাজায় না উপোসি কাদার হাত
গড়ে যায় মৌন মিছিলে আশার দুপুর
ছেলেমেয়ের থালাভরা গরম ভাতের গর্বের দুপুর
এবার আসবে লাল সিঁদূরের মত ভরাট সকাল

লাঙলের ফলায় জেগে ওঠে রক্তমাংস ঘাম
ঘামের লবণে ফুটে ওঠে উপোসি ঠোঁট
দাঁতে দাঁত চেপে ফসলের কান্না
জেগে ওঠে অভুক্ত মানচিত্রের ছবি
ক্যারি ভরে এসে যায় কুড়ি টাকার পাউচ

১০

নেশায় খিদে ভোলে পেরিয়ে যাওয়া দুপুর
মারি পোকা খুঁটে খায় বিষাক্ত ফুসফুস
ঢলে পড়ে অস্তগামি সূর্যছটা
থামে না বীজতলার হাত
হাঁটুগেড়ে রোয়ানো ধানের বীজ
চিরদিন ভাত বাড়ে কৃষকের হাত…

.

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *