বিজ্ঞান গবেষণায় কয়েকজন নারীর অবদান

 19 total views

বিজ্ঞান গবেষণায় কয়েকজন নারীর অবদান
সুদীপ ঘোষাল
______________________________________________

প্রথম নোবেল জয়ী নারী মেরিকুরি, নারী পুরুষ উভয়েরই আছে একই ধরণের জটিল গঠনের মস্তিষ্ক। তাই পুরুষের পক্ষে যা সম্ভব নারী তা পারবে না, এমনটি মনে করার কোন কারণ নেই। নারীরা শুধু সমতাকামী নন, তাঁরা সমতার যোগ্য- এর অজস্র প্রমাণ ইতিহাসে আছে। নারীরা শাসন করেছেন রাষ্ট্র, অবদান রেখেছেন সমাজের আমূল পরিবর্তনে। জ্ঞানের বিভিন্ন বিভাগে কাজ করেছেন তাঁরা, করছেন এখনও। ইতিহাসের পাতা থেকে এমন ১০ নারী বিজ্ঞানীর কথা জানব আজ। নারী পুরুষ উভয়েরই আছে একই ধরণের জটিল গঠনের মস্তিষ্ক। তাই পুরুষের পক্ষে যা সম্ভব নারী তা পারবে না, এমনটি মনে করার কোন কারণ নেই। নারীরা শুধু সমতাকামী নন, তাঁরা সমতার যোগ্য- এর অজস্র প্রমাণ ইতিহাসে আছে। নারীরা শাসন করেছেন রাষ্ট্র, অবদান রেখেছেন সমাজের আমূল পরিবর্তনে। জ্ঞানের বিভিন্ন বিভাগে কাজ করেছেন তাঁরা, করছেন এখনও। ইতিহাসের পাতা থেকে এমন ১০ নারী বিজ্ঞানীর কথা জানব আজ।
১৯০৩ সালে পদার্থে নোবেল অর্জন করেন মেরি। পরবর্তিতে ১৯১১ সালে রসায়নে আবারও নোবেল পান। তিনিই নোবেলজয়ী প্রথম নারী। তিনি মূলত রেডিও এক্টিভিটি নিয়ে কাজ করেছেন। পদার্থ বিজ্ঞানে তাঁর অবদান রেডিও এক্টিভিটি এবং নিউক্লিয়ার ফিজিক্সের উপর কাজ করেন এই নারী। আবিষ্কার করেন প্রটেক্টিনিয়াম এবং নিউক্লিয়ার ফিশন। এজন্য ১৯৪৪ সালে নোবেল প্রাইজে ভূষিত হোন। তাঁর নামে একটি উপাদানের নামকরণ করা হয় মাইটনারিয়াম।

ওয়াইফাই এবং ব্লুটুথে যে প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয় তাঁর আবিষ্কারক আর কেউ নন, হেডি লেমার। পাশাপাশি তিনি একজন হলিউড অভিনেত্রীও ছিলেন।
ফরাসী এই নারী মেরি কুরি এবং পেইরি কুরির সন্তান। কৃত্রিম রেডিও এক্টিভিটি আবিষ্কারের কারণে ১৯৩৫ সালে রসায়নে নোবেল আবিষ্কার করেন তিনি।
১৯৪৫ সালে আবিষ্কার করেন ৩ ডাইমেনশনের বায়োমলিকিউলার স্ট্রাকচার। এরপর তিনি এবং তাঁর সহকর্মী মিলে পেনিসিলিনের গঠনের মিমাংসা করেন।

ভিটামিন বি১২ এর মলিকিউলার স্ট্রাকচার আবিষ্কার করেন হডজকিন ১৯৪৮ সালে। তবে এর সর্বশেষ গবেষণার ফলাফল প্রকাশিত হয় ১৯৫৫ সালে যা তাকে এনে দেয় নোবেল এটোমিক নিউক্লেই এর গঠন ব্যাখ্যা করেন তিনি। এজন্য ১৯৬৩ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল অর্জন করেন। মেরিকুরির পর তিনি পদার্থে নোবেল গ্রহণে ২য় নারী।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *