লজ্জা – শম্পা সাহা

বিক্রি করি সুখকে আমি বিক্রি করি দুঃখকে
আমি বিরাট কবি ভেবে রোজই দেখি লোক ঠকে
ব্যক্তিগত যা কিছু সব উজাড় করি হাটবাজার
অকিঞ্চন খুদকুঁড়ো সব এক মাণিক ধন সাত রাজার
সবই বেচার জন্য ফেলি কোন খানা খায় পাবলিকে
আমি বড্ড নাম কিনেছি মনের গোপন সব লিখে
ভাবছো বুঝি কবি আমি ভাবের ঘোরে কবিতা
লিখছি শুধু বুঝছি না তো হচ্ছে কি সব অবিদ্যা
হুঁ! হুঁ! বাবা সব বুঝেছি তবুও ন্যাকা সাজতে চাই
অশ্লীলতার আসর সাজাই শিল্প রসের তকমা পাই
এই ভাবে রোজ একটা চুমু দুটো ঠোঁটের ফুলঝুড়ি
আরো আছে এদিক ওদিক নানান রস ও সাত ভরি
সব মিলিয়ে জবর রকম ডজন খানেক ছাই আর পাঁশ
লিখছি আমি গিলছে সবাই সত্যি যেন না হয় ফাঁস।
যার যা খুশি লিখবে তাতে আমার কি আর যায় আসে
তবু কোথাও তীব্র রসে মনের কোমল হাঁসফাঁসে
হোক কবিতা কোমল মতন হোক কবিতা জ্যোৎস্না যে
সত্যি কবির কদর যেন সত্যি পাঠক ঠিক বোঝে
সস্তা চমক, সস্তা খ্যাতি, সস্তা বিবেক বিকছে তাই
নয়তো কবি, পাঠক হয়ে ভীষণ রকম লজ্জা পাই
বড্ড বেশি লজ্জা পাই।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top