সত্যি – অভিষেক সাহা

[post-views]
 

 

” নমিতা কাকিমা যা বলে গেলেন তুমি কী সত্যি বলে মনে কর?” স্বামীর দিকে কড়া চোখে তাকিয়ে স্ত্রী জিজ্ঞেস করল।
” উনি কী বলে গেছেন! ঠিক মনে পড়ছে না ।” স্বামী অবাক হয়ে বলল।

” দরকারের সময় তোমার তো কিছুই মনে পড়ে না। উনি যে তখন তোমার সামনে বলে গেলেন , আমি নাকি তোমাকে দাবিয়ে রাখি, সব সময় চিৎকার করে কথা বলি, এইসব । ” স্ত্রী রাগ দেখিয়ে বলল।

” ও, তাই। আমি ভুলে গেছিলাম।” স্বামী স্বীকার করল।
” তুমি ওনাকে কিছু বলবে না ।” স্ত্রী জানতে চাইল।
” কী বলব!” স্বামী পাল্টা প্রশ্ন করল।

” তুমি যদি ওনার কথা সত্যি বলে মনে না কর তবে কালই ওনার বাড়ি গিয়ে ওনার স্বামীর সামনে বলে আসবে যেন আর কোনো দিন তোমার বউকে অপমান করার সাহস না পায়।” স্ত্রী এবার গলা চড়াল।

” নিশ্চয়ই। আমি কী একটা সিগারেট ধরাব। মানে বলছিলাম মাথাটা খুলত।কী বলব গুছিয়ে নিতে পারতাম।” স্বামী অনুরোধ করল।
” একটাই খাবে। প্যাকেটটা আমার কাছে রেখে যাও।” স্ত্রী নিষেধাজ্ঞা সহ অনুমতি দিল।

স্ত্রীর অনুমতি পেয়ে একটা সিগারেট নিয়ে বাড়ির ছাদে এল স্বামী। সিগারেট ধরাল। সুখটান দিল। তারপর মনে মনে ভাবল ” কাল একবার নমিতা কাকিমার বাড়ি যাব থ্যাঙ্কু বলে আসতে। বউকে অনেক দিন পর সত্যির সামনে দাঁড় করানোর জন্য। সঙ্গে এটাও বলে আসব এরপর থেকে সত্যি কথা বলার সময় যেন আমাকে সাক্ষী না রাখে।”

 

 

 

 

আপনার মতামতের জন্য

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top