সম্পর্ক – অধ্যাপক সৌম্য ঘোষ

[post-views]

 “সম্পর্ক”—– এমন একটি শব্দ যার দ্যোতনা  অনেক বেশি ।গভীরতাও অনেক । সম্পর্ক— শব্দটির মধ্যেই লুকিয়ে আছে হাজারো অর্থ ।সম্পর্ক মানেই  মায়া, আন্তরিকতা টান, ভালোবাসা, মমত্ব ।আমরা যে সম্পর্কে প্রাথমিক ভাবে আবদ্ধ সেখানে প্রথমেই চলে আসে জেনেটিকালি  দাদু -ঠাকুমা ,বাবা -মা ,দিদি- দাদা- ভাই -বোন ইত্যাদি অর্থাৎ পরিবারের কথা। আছে স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক ।এর বাইরে যে পৃথিবী আছে সেখানে মনের অনুভূতি একগুচ্ছ মিলনে আরো কত মানুষ চলে আসে তৈরি হয় সম্পর্ক ।

                      কিন্তু শুধুই কি মানুষের সঙ্গে মানুষের সম্পর্ক রচিত হয় ? তা তো নয়। যেকোন বিষয়  সময় ,স্থাপত্য ,নদী ,বালুতট ,গাছ- ফুল- পাখি ——– সম্পর্ক সবার সঙ্গে হতে পারে। প্রয়োজন গভীর অনুভূতি ।

                    সম্পর্কের কত প্রকারভেদ আছে তার সংজ্ঞা আমার জানা নেই ।সম্পর্ক নিঃস্বার্থ হলে দীর্ঘস্থায়ী হয় ।স্বার্থযুক্ত সম্পর্ক ভঙ্গুর ।একটি সম্পর্ক গড়ে তুলতে গেলে দরকার সততা ,বিশ্বস্ততা, স্বচ্ছতা ,বোঝাপড়া এবং অবশ্যই দায়িত্ব ।

                  “সম্পর্ক ” বিষয়ক গবেষনায়  ” The Proceedings Of National Academy Of Science , Canada”  মন্তব্য করেছে :  ” …….  একজন মানুষ তার সম্পর্ক নিয়ে কতটুকু সন্তুষ্ট বা সঙ্গীর প্রতি তার আন্তরিকতা কতটুকু এর উপরেই সম্পর্কের মান নির্ভর করে “। গবেষণায় এও বলা হয়েছে ,একজন মানুষের ব্যক্তিগত বৈশিষ্ট্যের উপর সম্পর্ক নির্ভরশীল ।ব্যক্তিগত বৈশিষ্ট্য গুলি হলো , প্রাত্যহিক জীবনযাত্রা সন্তুষ্টি ,নেতিবাচক মাত্রা, হতাশা ,পারস্পরিক বোঝাপড়া ও মেলামেশা ইত্যাদি ইত্যাদি ।।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top