সুপ্ত আগ্নেয়গিরি – ছন্নছাড়া

 

[post-views]

 

[printfriendly]

 

[smbtoolbar]

 

আমি এক অতি শান্ত, সুপ্ত আগ্নেয়গিরি,
মাটির উপরে দাঁড়িয়ে থাকা পাথরের আপাত নিরীহ স্তুপ,
কিন্তু আমার বুকের ভিতরে চলেছে উত্তপ্ত লাভার লুকোচুরি!
গলিত ধাতব কণার দাপাদাপি, উদ্দাম সেই রূপ!

হয়ত ভেবেছ আমি মৃত, আমি কি আর ক্ষমতা ধরি,
তাই তোমাদের ক্ষমতার দম্ভ, করে লাফালাফি, দেখায় আস্ফালন!
তোমাদের উদ্ধত পদচালনা চলে মোর শিরো’পরি!
তবুও স্হানুবৎ দাঁড়িয়ে থাকা মোর, নেই কোনো গমন চলন।

অথবা ভাবছ, আমি দুর্বল, আমার সহ্যশক্তি সীমাহীন!
তোমাদের দাপুটে অত্যাচারে আমি পরাভূত, নত শির, স্থির!
আমি নিশ্চল, প্রতিবাদহীন, মেরুদন্ডহীন, অতিশয় দীন।
আমাকে করবে শাসন চিরদিন, দুর্বিনীত তুমি উচ্চ করি শির!

একবার শুধু ভেবে দেখো, স্হির আছি অসীম ধৈর্য ধরে!
যদি আবার আমি সত্যিই জেগে উঠি, তখন তোমাদের কি হবে?
ভুলে গেছ কি, আমার উত্তপ্ত লাভার স্রোত, কি প্রলয় করে?
সত্যি যদি তেমন ঘটে, তোমরা সবাই কোথায় রবে?
মনে রেখ সেদিন তোমাদেরও হতে পারে “হুমায়নের পদস্খলন!”
তোমাদের অত্যাচারী শাসনেরও হবে অদ্ভুত সমাপতন।

প্রতিবাদ আমিও করতে পারি, সে ত ভয়ঙ্কর হবে
সেদিন তোমরা হবে নিশ্চিহ্ন, লয় হবে চিরতরে!
এখনও সময় আছে, ক্ষমতার দাম্ভিকতা দূরে ঠেলে ,
উদগ্র অত্যাচার ভুলে, বাসযোগ্য করে তোলো ধরাতলে।

প্রতিবাদীর প্রতিবাদ একদিন ভেঙেছিল বাস্তিল দুর্গ ,
শাসকের নিজের পরিবর্তন হলে, বিশ্ব হবে স্বর্গ।

Biswajit Bose

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top