সুপ্রভাত মেট্যার দুটি কবিতা

অবগাহনস্পৃহা

সুপ্রভাত মেট্যা

দেওয়া এমন কথা, যা রাখার দায়িত্বও মানবিক…
মিথ্যা কথা শুনতে শুনতে সত্যও কখন যেন অচেনা হয়ে যায় । একটা ঝড়ো হাওয়ার কবিতা আমার বুকে এসে লাগে ।ভেঙে যায় খুশি ।
চৌরাস্তার শব্দগুলো ভাসতে ভাসতে তারা আর কবিতা হয়না । গুলিগালা হয়ে ছুটে বেড়ায় ।
এই বুকের ভিতর তোমার আঁকা সন্ধ্যাবেলার যেটুকুনি জায়গা ছিল তাও আজ ধসে গেছে জলে !

অথচ সমুদ্রের থেকেও আরও প্রবল ঢেউ খেলার স্রোতে তোমার কিশোরী স্বপ্ন , আমি দেখেছি।
দেখেছি অগ্নি ক্ষরণ আর অবগাহনস্পৃহা থেকে নেমে আসা তোমার শরীরী বলন, সামুদ্রিক ….
এবং , আমাদের দুপুর বয়সের
দগ্ধাদগ্ধি হয়ে বসে থাকা , তাও !

নিষ্ঠা

সুপ্রভাত মেট্যা

পড়ে আছি সকালবেলায় ।
ঢুকে পড়েছে আলো হু হু করে ।
চোখের সামনে দিয়ে ধুলো,হাওয়ায় নেচে নেচে চলে যাচ্ছে দূর ।
এ শহর তোমাকে মানায় না।
এ আলো তোমার নয় ।
একটা বিয়াল্লিশের শরীর আগুনের বৃষ্টি নিয়ে হেঁটে যাচ্ছ ,রাগি রৌদ্রের রাস্তার উপর দিয়ে , খালি পায়ে , আনন্দ ও অন্ধকারের দিকে কী দারুণ ! গ্রামের হাটে গিয়ে , উচ্ছে বেচে , বিক্রি করছ নিজের সরলতা । কাণ্ডজ্ঞানহীন লতাপাতা ফেলে দিচ্ছ কোনের ডাস্টবিনে ।

চলে যাওয়ার পরও
থেকে গেলেই , তার নামই আসল কবিতা ; এই ভেবে লিখে যাওয়াটা হচ্ছে প্রকৃত প্রতিফলন , নিষ্ঠার , তুমি বলে যাচ্ছ ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top