খনি থেকে উঠল ৪৪২ ক্যারাটের হিরে, যার দাম প্রায় ১৩৫ কোটি টাকা – সিদ্ধার্থ সিংহ
https://storyandarticle.com/

খনি থেকে উঠল ৪৪২ ক্যারাটের হিরে, যার দাম প্রায় ১৩৫ কোটি টাকা – সিদ্ধার্থ সিংহ

  • Post category:প্রবন্ধ
  • Post comments:0 Comments
  • Post last modified:November 26, 2020
  • Reading time:1 mins read

৪৪২ ক্যারাটের একটি হিরে পাওয়া গেল দক্ষিণ আফ্রিকার লেজোতোর লেতসেঙ খনিতে। সেখানে কাজ করতে গিয়ে একজন শ্রমিক উদ্ধার করেন এই হিরেটি।

হিরেটি দেখে বিএমও ক্যাপিক্যাল বাজারের একজন জানান, এই মুহূর্তে ওই হিরেটির দাম কম করেও ১৮ মিলিয়ান ডলার। মানে ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১৩৫ কোটি টাকা।

আকারে বড় এবং দুষ্প্রাপ্য হিরের জন্যই লেজোতোর লেতসেঙ হিরের খনিটি বেশ‌ বিখ্যাত। এখানকার হিরে সব চেয়ে বেশি দামে বাজারে বিক্রি হয়। কয়েক বছর আগে ৯১০ ক্যারাটের গল্ফ বলের মতো বড় একটি হিরে পাওয়া গিয়েছিল ওই খনিতেই। ৪০ মিলিয়ান ডলারে বিক্রি হয়েছিল সেই হিরে। মানে ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২,৯৪,৩৬,৭৪,০০০ টাকা।

খনির এক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এই মুহূর্তে সোনার দাম কিছুটা কম হলেও, গয়নার চাহিদা কিন্তু মোটেই বাড়েনি, উল্টে কমেছে। ফলে হিরের বাজারেও বেশ  মন্দা। তবে যত কম চাহিদাই থাকুক না কেন, শখ করে কিংবা কাউকে উপহার দেওয়ার জন্য ছোটখাটো গয়না তো হচ্ছেই, আর গয়না তৈরি করতে হলে শুধু সোনা দিয়ে তো হবে না, হিরেও লাগবে। অন্তত ছোট আকারের হিরের তো লাগবেই।

তবে যতই মন্দা থাকুক, বড় হিরের বাজার সব সময় থাকে। এখনও প্রায় একই রকম রয়েছে। আসলে হিরের দাম নির্ধারণ হয় মূলত তার আকার, রং, গঠনশৈলী এবং কাটিংয়ের উপর। এখন এই হিরেটিকে এ ভাবেই আস্ত বিক্রি করা হবে, নাকি ক্রেতা পাওয়া না গেলে ছোট ছোট করে কেটে বিক্রি করা হবে, তা এখনও ঠিক হয়নি। তবে যে ভাবেই হোক, এটা যে সঠিক দামেই বিক্রি হবে সে ব্যাপারে খনি কর্তৃপক্ষ একেবারে একশো শতাংশ নিশ্চিত।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply