বিয়ের বহু বছর পরেও…    –   সিদ্ধার্থ সিংহ

বিয়ের বহু বছর পরেও… – সিদ্ধার্থ সিংহ

  • Post category:প্রবন্ধ
  • Post comments:0 Comments
  • Post last modified:December 19, 2020
  • Reading time:1 mins read

 

বিয়ের পর বেশ কয়েক বছর কেটে গিয়েছে তাঁদের। সব স্বামী-স্ত্রীর মতো তাঁরাও চান তাঁদের সন্তান হোক। কিন্তু‌ বিয়ের বেশ কয়েক বছর কেটে যাওয়ার পরেও তাঁদের কোনও সন্তান হল না।
 
তখন এক বন্ধুর পরামর্শে তাঁরা ডাক্তারের কাছে যান। তাঁদের সমস্যা খুলে বলতেই, ডাক্তার একদম আকাশ থেকে পড়েন, অন্য দিকে বিস্মিত হন ওই দম্পতিও। তাঁরা জানতেনই না, বাচ্চা হওয়ার জন্য যৌনতার প্রয়োজন।
এমনই এক অদ্ভুত ঘটনার কথা লিখেছেন ইউনাইটেড কিংডম ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিস-এ ৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কাজ করা ৫৯ বছর বয়সী এক নার্স— র‌্যাচেল হিয়ারসন।
 
বছরের পর বছর ধরে দাইমা এবং নার্স হিসাবে কাজ করছেন তিনি। সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে তাঁর ‘হ্যান্ডেল উইথ কেয়ার : কনফেশনস অব এনএইচএস অ্যান এনএইচএস হেল্থ ভিসিটর’ নামে একটি স্মৃতিকথা।
সেখানেই তিনি এই অদ্ভুত দম্পতির কথা লিখেছেন। তিনি লিখেছেন, বিয়ের দীর্ঘদিন পরেও সন্তান না হওয়ায় ওই দম্পতি এক ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।
 
স্বামী-স্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে ওই ডাক্তার বুঝতে পারেন, কী ভাবে একটি শিশুর জন্ম হয়, সে সম্পর্কে ওই দম্পতির কোনও ধারণাই নেই। এর পরেই সেই ডাক্তার ডেকে পাঠান তাঁকে।
 
তাঁকেই দায়িত্ব দেওয়া হয় ওই দম্পতিকে বোঝানোর জন্য। তখনই তিনি ওই দম্পতির সঙ্গে যৌনতা নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করেন এবং বুঝতে পারেন, ওই দম্পতি  এই ব্যাপারে একেবারেই অজ্ঞ।
 
ওঁরা ভেবেছিলেন, পাশাপাশি ঘুমিয়ে থাকলেই বুঝি এমনি এমনিই গর্ভে সন্তান চলে আসে। কাজেই বিয়ের পরে একসঙ্গে থাকা শুরু করেও তাঁরা যখন কোনও সন্তানের বাবা-মা হতে পারলেন না, তখন তাঁরা মনমরা হয়ে পড়লেন।
তাঁদের সেই ভুল ধারণা ভাঙানোর জন্য তাঁকে বেশ কালঘাম ছোটাতে হয়।‌ অবশেষে তিনি তাঁদের পুরো বিষয়টা বোঝাতে সক্ষম হন এবং পরে তাঁরা শেষ পর্যন্ত সন্তানের জনক-জননীও হন।
 
যদিও‌ এই বইটিতে শুধুমাত্র এই ঘটনার কথাই নয়, এই রকম আরও অজস্র নানান মজাদার এবং অদ্ভুত অদ্ভুত ঘটনার বর্ণনা করেছেন‌‌ র‌্যাচেল হিয়ারসন।
সিদ্ধার্থ সিংহ

 

 

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply