পৃথিবীর জন্য মানুষ নয়, মানুষের জন্যই এই সুন্দর পৃথিবী – রতন বসাক

পৃথিবীর জন্য মানুষ নয়, মানুষের জন্যই এই সুন্দর পৃথিবী – রতন বসাক

  • Post category:প্রবন্ধ
  • Post comments:0 Comments
  • Post last modified:December 21, 2020
  • Reading time:1 mins read

 

এই বছরের শুরু থেকেই সমগ্র বিশ্ব এক ভয়াল ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। তার কবল থেকে আমাদের দেশ ভারতবর্ষও রক্ষা পায়নি। এক অতি ক্ষুদ্র ও অদৃশ্য এক ভাইরাস যা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে মানুষের দেহে। এর কারণে মানুষের মৃত্যু পর্যন্তও হয়েছে আজ পর্যন্ত সংখ্যায় অনেক। 
 
এই ভাইরাস যার নাম ” করোনা” এর আক্রমনে যে রোগ হয়, তার ওষুধ আজ পর্যন্তও আবিষ্কার হয়নি। তবে ওষুধ আবিষ্কারের জন্য সমগ্র বিশ্বে নিরলস প্রচেষ্টা চলছে। কিছুটা সুফলও পাওয়া গেছে, আশা করা যায় কয়েক মাসের মধ্যেই আমরা ওষুধটা পেয়ে যাব। তার আশাতেই আমরা সবাই তাকিয়ে আছি।
 
তবে যতদিন না পর্যন্ত ওষুধ আবিষ্কার হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত এর হাত থেকে বাঁচার একমাত্র উপায় হল; দৈহিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা। যার জন্য সমগ্র বিশ্বে ” লক ডাউন ” সিস্টেম চালু হয়েছিল বেশ কয়েক মাস। এর সুফলও পাওয়া গেছে, তবে বেশি দিন কর্মহীন হয়ে ঘরে বসে থাকলে তো, আর জীবন চলে না। তাই লক ডাউন ধীরে ধীরে উঠিয়ে দিয়ে স্বাভাবিক জীবন শুরুর পথে।
 
এখন আমাদের বাইরে গেলে সবসময় মুখে মাক্স পড়তে হবে আর হাত ধুতে হবে নিয়ম করে। এছাড়া পার্সোনাল ডিসট্যান্স বজায় রেখে চললে পরে তবেই, এই রোগের ছড়ানো থেকে আমরা বাঁচতে পারব। মানসিক দূরত্ব নয় শুধুমাত্র শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে, কেননা আমরা সামাজিক জীব।
 
এই মারাত্মক পরিস্থিতি এখনও চলছে। গত কয়েক মাসে এই পরিস্থিতি থেকে আমরা অনেক কিছু শিখেছি। হয়তো প্রকৃতিকে অবহেলা করেছি বলেই, আজ আমাদের এই পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে। আমরা সবাই এতটাই ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলাম, যে ঘরের নিজের মানুষকেও সময় দিতে পারতাম না। আজ সেইসব মানুষকে সময় দিতে পেরেছি ও চিনতে পেরেছি।   
 
পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা যে কতটা মানুষের জীবনে প্রয়োজনীয়, তা এই করোনা আমাদের শিখিয়ে দিয়েছে। সমগ্র বিশ্ব নিজের ক্ষমতা দেখানোর জন্য যুদ্ধ ক্ষেত্রে প্রচুর ব্যয় বহন করত। সেসব আজ প্রয়োজনহীন, তা প্রমাণ হয়ে গেল এই পরিস্থিতির মধ্য দিয়েই। সেই ক্ষমতা কোনো কাজেই আসলো না সামান্য এক অদৃশ্য করোনার আছে। 
 
তাই আমাদের সবাইকে এখন নতুন করে ভাবতে হবে জীবনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য। আমরা কোন খাতে বেশি ব্যয় করব সেটা এখন বোঝা গেল যথেষ্ট। বিজ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে মানুষের উন্নতি ও বেঁচে থাকার জন্য ওষুধ আবিষ্কারের ক্ষেত্রে আমাদের বেশি নজর দিতে হবে। ক্ষমতা বা যুদ্ধ নয় শান্তিতে আমাদের আগে বিশ্বাস করতে হবে। পৃথিবীর জন্য মানুষ নয়, মানুষের জন্যই এই পৃথিবী। সমস্ত রকম প্রাণী বেঁচে থাকলেই, তবে এই পৃথিবী বাসযোগ্য হবে সবার জন্য।
রতন বসাক
 
পরিচিতি :-
রতন বসাক, 
২, নম্বর বঙ্কিমনগর, 
পো. অ. – আতপুর, 
জেলা – উত্তর ২৪ পরগণা,
পশ্চিমবঙ্গ, ভারত-৭৪৩১২৮
 
ই.মেল. – ratan267@rediffmail.com
 
জন্ম :- ২৬ .০২.১৯৬৭
স্থান :- কলকাতা
শিক্ষা :- স্নাতক (B.A.)
প্রাক্তন সৈনিক, ভারতীয় বিমান বাহিনী ।
জুন, ২০১৮ থেকে আমি ছড়া, কবিতা ও প্রবন্ধ লেখা শুরু করি । ফেসবুকে বিভিন্ন সাহিত্য গ্রুপে নিয়মিত প্রতিদিন লেখালেখি করি । এ পর্যন্ত ২৫ টির বেশি যৌথ কাব্য সংকলনে ও ১০ টির বেশি ই – বুকে আমার লেখা বের হয়েছে । 
 
Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply