Biswanath pal

ইঁদুর কলে পড়েছে তাই
—-বিশ্বনাথ পাল
দিন চলে যায় ।প্রাণ গলে যায় ।মন কেঁদে
ফেরে –আপনার বিবরে।তবুও প্রতিদিন বাড়ে তাঁর ঋণ।মনের একান্তে পারি না জানতে।বড় জ্বালাতন ! কী করি এখন
মন চলে যায় সুদূরে। তবু চেয়ে দেখি স্মৃতির মানিক একাকী । অনেক কথা আসে মনে ঝরে অশ্রু দু নয়নে।মনের
মালিন্য মনের কপটতাকে দেখি ফিরে
ঘুরাই মাথা।তবুও প্রতিদিন বেড়ে যায়
অসীম নীরবতা।সীমার মাঝে অপরূপ অসীমের হাতছানির একান্ত যে রূপ তাই বুঝি নৈঃশব্দ্য ।সেখানে হৃদয়ের নৈবেদ্য।
থরে বিথরে সাজানো।সেখানে ক্ষুদ্র মানুষ একান্ত ই ঘরকুনো।নেই কোন তাঁর ভূমিকা মহাবিশ্বের মহাকাশে বুদবুদের মতো সে মিলিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় নিজেই নিজেকে জাহির করে ঢাকতে চায় আপন ক্ষুদ্রতায়।কিন্তু মনের ক্ষুদ্রতা
অহমিকার আড়ম্বরে –বাড়ে না একেবারে।কোন প্রলোভন কিম্বা কোন অবলম্বন তাকে ঠিক পথে পরিচালিত করবে কবে এই বলে মানুষ যদি একান্তে নিজের কাছেই যদি না কাঁদে তবে মহা মুস্কিল!কাঁচের ঘরে বাস করে পড়শির ঘরে ঢিল–কে মারবে বল।দিন যায় চলে।দেখ আয়া রবি অস্তাচলে !:এই সময় জ্ঞান বিজ্ঞান মান অভিমান সব যাক চলে।শরণাগতি হোক মানুষের পাথেয় যা মানুষের মুক্তির কথা বলে।
মুক্তি মানেই মুক্তো একথা থাক সুপ্ত।সুস্থ জীবন বোধ,সরল জীবনের ব্যঞ্জনা
একান্ত গর্বের বিষয়,অনেকের আছে জানা।তবুও মহামায়ার ফাঁদে–তুচ্ছ মানুষ কাঁদে।জীবন থেকে শিক্ষা নেওয়ার
সময় কিম্বা সুযোগ,দুটোই দুর্ভোগ ।অনিশ্চিত ভবিষ্যত আর বাঁকা পথে সাফল্যের সুযোগ হাতে হাতে পেতে
মানুষ কখন যেন প্রতিযোগিতায় নেমেছে
বাঁকা পথে যেতে ।ফলে মূলে গণ্ডগোল ।হঠাৎ ফাটে আত্মরক্ষার ঢোল।ছলনার
ঢেউ খেলানো হাসিতে কিম্বা সাধু সেজে বসে ঠিক পাশটিতে।গাঁট কেটে কেটে ধিন তাক তেরে কেটে বলে বোল তুললেও তা হবেই বিদঘুটে ।মনের মালিন্য মনের চপলতা কিম্বা সীমাহীন কপটতা সব একজনের কাছে স্ক্যান হয়।
এটাই বড় বিপদ মহাশয় ।পালাবার পথ নেই।সামনে পিছনে বামে ডাইনে।চোখ কুটকুট পেট গরবর।তবুও আমরা না রাখলেও সে কিন্তু ঠিক রাখে খবর।তার হিসেবের সুদিনে সুদে আর মূলে সব জ্বালা জুড়াবে সেই সে দিনে। তখন সরলতার বদলে গরলতা, ভালবাসার জায়গায় ঘৃণা এসব দেখে বিচারকের চক্ষু চড়কগাছ।বলে খুব দেখিয়েছ নাচ।
তোমার দিন গেলেও ঋণ বেড়ে গেছে ঢেড়।ফিরে যাও ফের।
তখন গ্রহের ফের বলে মাথা কাটলেও
ঋণ দিন দিন বেড়ে যাবে কান্না কান্নার বায়না কোন কিছুকে ডাকলেও সে আসে না।কি যন্ত্রণা ।হঠাৎ করে আবিষ্কার করি নিজের বন্ধ ঘরে ফেরার রাস্তাটাই । ইঁদুর কলে পরেছে তাই!!

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *